স্বামী প্রবাসে: টাকা-স্বর্ণালংকার নিয়ে প্রেমিকের সঙ্গে উধাও স্ত্রী

ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলায় ছয় বছরের কন্যা সন্তানসহ টাকা, স্বর্ণালংকার ও মোবাইল নিয়ে প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়েছেন সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী শাহনাজ আক্তার ঝর্ণা। গত ৫ ফেব্রুয়ারি রাজাপুরের ভাড়া বাসা থেকে পালিয়ে যান তিনি। এ ঘটনায় দাগনভূঞা থানায় লিখিত অভিযোগ করেন প্রবাসী মো. গিয়াস উদ্দিনের ভাই মো. রফিকুল ইসলাম।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার ৪ নম্বর কাদরা ইউনিয়নের তাহিরপুর ভূঁইয়া বাড়ির আবুল কাশেমের মেয়ে শাহনাজ আক্তার ঝর্ণার সঙ্গে প্রায় ১৩ বছর আগে প্রবাসী মো. গিয়াস উদ্দিনের বিয়ে হয়। তাদের ঘরে ছয় বছর বয়সী একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। বিয়ের ৫ বছর আগে থেকে মো. গিয়াস উদ্দিন সৌদি আরব থাকতেন। বিয়ের পর প্রায় ১৩ বছর ধরে প্রবাস জীবনের সব টাকা স্ত্রীর নামে ব্যাংকে ও বিকাশের মাধ্যমে পাঠাতেন মো. গিয়াস উদ্দিন। স্বামী বিদেশ থাকা অবস্থায় এক ব্যক্তির সঙ্গে পরকীয়ায় লিপ্ত হন তার স্ত্রী। বিষয়টি জানাজানি হলে মো. গিয়াস উদ্দিনের ছয় বছরের মেয়ে তাসলিমা আক্তার চাঁদনি, ৯ লাখ ৬০ হাজার টাকা, ৫ ভরি স্বর্ণ ও সংসারের আসবাবপত্র নিয়ে গত ৫ ফেব্রুয়ারি সকাল ১২টায় রাজাপুরের ভাড়া বাসা থেকে পালিয়ে যান ওই গৃহবধূ।

অনেক খোঁজাখুঁজির পর না পেয়ে প্রবাসী মো. গিয়াস উদ্দিনের ভাই মো. রফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে দাগনভূঞা থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। সৌদি প্রবাসী মো. গিয়াস উদ্দিনের স্ত্রী পলাতক শাহনাজ আক্তার ঝর্ণা এবং তার মেয়ে তাসলিমা আক্তার চাঁদনির খোঁজ কেউ দিতে পারলে সন্ধান দাতাকে পুরস্কার দেওয়া হবে বলে গিয়াস উদ্দিনের পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

দাগনভূঞা থানার ওসি মো. আবুল হাসিম বলেন, থানায় অভিযোগ করেন বাদী। মামলাটি তদন্তের জন্য এস আই আরিফকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তিনি বিষয়টি সরেজমিনে খবর নিয়ে ব্যবস্থা নেবে।